শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
ড্রেজার শ্রমিকের ইটের আঘাতে কুশিয়ারা নদীতে জেলে নিখোঁজ শাবিতে গভীর রাতে হাজারো শিক্ষার্থীর মশাল মিছিল শাবির ঘটনায় যেন আগুনে ঘি ঢালা না হয়-পরিকল্পনামন্ত্রী অনশন থেকে হাসপাতালে শাবির ছয় শিক্ষার্থী  ড. মোমেনকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো-বাইডেনের শুভেচ্ছা কমলগঞ্জে ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা অনশনে অসুস্থ হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা, শিক্ষকদের আলোচনার প্রস্তাব নাকচ শাবির ভিসির কুরুচিপূর্ণ-অবমাননাকর বক্তব্য প্রত্যাহারে আইনি নোটিশ র‍্যাবকে শান্তিরক্ষা মিশন থেকে বাদ দিতে জাতিসংঘে চিঠি আইসিসি বর্ষসেরা একাদশে টাইগারদের দাপট ভালো পরিবেশের জন্য ভালো সম্পর্ক গুরুত্বপূর্ণ: সেনাপ্রধান ড. মোমেনের নেতৃত্বে সিলেটে আসছে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি দল খালেদা জিয়া ও খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের রোগমুক্তিতে দোয়া মাহফিল তাহিরপুরে করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে পুলিশের মাইকিং শাবিতে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে অনশন শুরু শিক্ষার্থীদের

শিক্ষার্থীদের রাজনীতি সচেতন হতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

নতুন সিলেট ডেস্ক :
  • আপডেট : রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২১
শিক্ষার্থীদের রাজনীতি সচেতন হতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী - Natun Sylhet

রাজনীতি বিমুখ না হয়ে শিক্ষার্থীসহ সবাইকে রাজনীতি সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, রাজনীতি হলো সেই জায়গা যেখানে জীবনের প্রায় সব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে রোববার (২৬ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান তিনি।

রাজনীতি বিষয়ে নেতিবাচক মনোভাব প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, একটা জায়গায় গিয়ে তো আমি ভয়ই পেয়ে গেলাম, সেটা হলো গিয়ে, সেখানে লেখা আছে—ধূমপান ও রাজনীতিমুক্ত ক্যাম্পাস। অর্থাৎ রাজনীতিটা ধুমপানের মতোই পরিত্যাজ্য! এই রকম একটা মেসেজ সেই প্রতিষ্ঠান দেবার চেষ্টা করছে। আমি সেখানে আমার মতামত তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, রাজনীতি, আমাদের জীবনের সব ক্ষেত্রের মতোই। রাজনীতিতেও ভালো-মন্দ সব আছে। কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে, রাজনীতি ভালো নয়।

ব্যক্তিগত কয়েকটি বিষয় ছাড়া একটা মানুষের জীবনের প্রায় সব সিদ্ধান্ত রাজনীতি অঙ্গনে হওয়ার কথা উল্লেখ করে দীপু মনি বলেন, রাজনীতি সেই জায়গা যেখানে জীবনের প্রায় সব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। একেবারে আমাদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত যেগুলো সেগুলো হয়তো নিজেরা নেই।

দীপু মনি বলেন, কিন্তু আমাদের জীবনটা কেমন চলবে? আমার দেশটা কেমন হবে? আমার পড়ার সুযোগ থাকবে কি থাকবে না? আমার খাবারের সংস্থান হবে কি হবে না। কাজের সংস্থান হবে কি হবে না। সকালে (বাসার) কলটা চালালে পানিটা আসবে কি আসবে না—সেই সিদ্ধান্তগুলো যেখানে গৃহীত হয় সেই জায়গাটা হলো রাজনীতি।

সেই জায়গাটায় হতেই পারে যে সেখানে দায়িত্বের পাশাপাশি ক্ষমতারও একটা যোগ আছে। সেখানে কিছু সুযোগসন্ধানী মানুষ থাকতে পারে। এটা হতেই পারে কিন্তু তার অর্থ এই নয় যে রাজনীতির জায়গাটা ঠিক নয়, যোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন, রাজনীতিটা মানুষের জন্য প্রয়োজন, মানুষ মাত্রই রাজনৈতিক জীব, রাজনীতির বাইরে মানুষ নয়, রাজনীতির ঊর্ধ্বে মানুষ নয়।

সরাসরি রাজনীতি না করলেও শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিক সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, রাজনীতি কর বা না কর, সেটা একেবারে ব্যক্তিগত পছন্দ, অপছন্দের ব্যাপার। দলীয় রাজনীতি করবে কি করবে না সেটাও তোমাদের একান্ত ব্যক্তিগত পছন্দের ব্যাপার। কিন্তু রাজনৈতিক সচেতন না হয়ে তুমি সচেতন নাগরিক হতে পারবে না, তুমি সুনাগরিক হতে পারবে না। দায়িত্ব পালন করতে পারবে না।

দীপু মনি আরও বলেন, সিদ্ধান্ত গ্রহণের জায়গায়, তোমার জীবনের সিদ্ধান্ত, তোমার দেশের সিদ্ধান্ত কে নেবে সেই সিদ্ধান্ত তুমি সঠিকভাবে নিতে পারবে না। কাজেই তোমাদের রাজনীতি সচেতন হতেই হবে। ভালো আর মন্দের তফাৎ বুঝতেই হবে, সাদা আর কালোর তফাৎ করতেই হবে।

রাজনীতির নামে অপরাজনীতির নিন্দা জানিয়ে দীপু মনি বলেন, আমরা আমাদের দেশে রাজনীতির নামে অনেক কিছু দেখি। রাজনীতির নামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করা দেখেছি, রাজনীতির নামে ষড়যন্ত্র দেখেছি।

সৎ, দক্ষ ও যোগ্য হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে দীপু মনি বলেন, কারিকুলামের বাইরেও অনেক কিছু শিখতে পারি। আমরা চাই সেগুলো কারিকুলামের অন্তর্ভুক্ত হোক, আমরা সেটা করবার চেষ্টা করছি—একেবারে শৈশব থেকে আমরা যেন প্রযুক্তি বান্ধব হয়ে উঠতে পারি। আমরা বিজ্ঞান মনস্ক হবো, প্রযুক্তি বান্ধব হবো, প্রযুক্তি ব্যবহারে দক্ষ হবো।

‘একই সঙ্গে আমরা মানবিক মানুষ হবো, আমাদের মধ্যে মূল্যবোধ থাকবে, কোন মূল্যবোধ? যে মূল্যবোধ আমাকে একজন সংবেদনশীল ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলে। ’

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষার্থীদের মন্ত্রী বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব এসেই গেলো, তার জন্য আমাদের তৈরি হতে হবে। তথ্য প্রযুক্তি-বিজ্ঞান জানতেই হবে। দক্ষ হয়ে উঠতে হবে। এখন থেকেই আমরা যদি তথ্য-প্রযুক্তিতে দক্ষ হয়ে উঠি তাহলেই কিন্তু আমরা ওই জায়গাটায় যেতে পারবো।

দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ গভর্নি বডির সভাপতি কে এম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মশিউর রহমান। সভা সঞ্চালনা করেন দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর মিয়া।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102