বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৪৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
ভালো পরিবেশের জন্য ভালো সম্পর্ক গুরুত্বপূর্ণ: সেনাপ্রধান ড. মোমেনের নেতৃত্বে সিলেটে আসছে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি দল খালেদা জিয়া ও খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের রোগমুক্তিতে দোয়া মাহফিল তাহিরপুরে করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে পুলিশের মাইকিং শাবিতে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে অনশন শুরু শিক্ষার্থীদের নৌকার মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর উঠান বৈঠক সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে দূর্ঘটনায় চালক নিহত নগরীর টিলাগড়ে ভয়াবহ আগুন, দোকান পুড়ে ছাই সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জে ছুুরিকাঘাতে যুবক খুন সিলেটে মোটরসাইকেল-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবকের মৃত্যু ভয়ঙ্কর করোনা: ঢাকাসহ ১২ জেলাকে উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা উপাচার্য পদত্যাগ না করলে আমরণ অনশন ঘোষণা শিক্ষার্থীদের  দেশে করোনায় আরও ১০ মৃত্যু, সনাক্ত ৮,৪০৭ জন যেভাবে উদঘাটন শিমু হত্যার রহস্য

হবিগঞ্জে চা পানে শিশুসহ ৭ জন অসুস্থ, টাকা-স্বর্ণ লুট

নতুন সিলেট প্রতিবেদক, আজমিরীগঞ্জ (হবিগঞ্জ):
  • আপডেট : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
হবিগঞ্জে চা পানে শিশুসহ ৭ জন অসুস্থ, টাকা-স্বর্ণ লুট - Natun Sylhet

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে কাকাইলছেও ইউনিয়নের আলিপুর গ্রামে চা পান করে একই পরিবারের পাঁচ জন সহ মোট সাতজন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) সকালে স্থানীয়রা তাদের অসুস্থ অবস্থায় আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটে। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতজনকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

অসুস্থরা হলেন- হানিফ মিয়া (৬০), তার স্ত্রী তরু বেগম (৫০), দুলাল মিয়া(২০),মোবাশ্বির মিয়া (২৫),শাকিম মিয়া (১৭), সিয়াব(০৭) এবং শোয়েব মিয়া (১৮)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার (২৭ ডিসেম্বর)  সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় কাকাইলছেও ইউনিয়নের আলিপুর গ্রামের বাসিন্দা হানিফ মিয়ার বাড়ীতে চা রান্না করা হয়। এ সময় প্রতিবেশী মোবাশ্বির মিয়া এবং শাকিল মিয়া সহ হানিফ মিয়ার পরিবার চা পান করার কিছুক্ষণ পরই অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাতে প্রতিবেশীরা বিষয়টি জানতে পেরে মঙ্গলবার ভোরে সাতজনকে অসুস্থ অবস্থায় আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।

হানিফ মিয়ার প্রতিবেশী এবং স্বজন মাহমুদ জামান বলেন,সোমবার রাতে হানিফ মিয়ার বাড়ীতে চা পান করার পর সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েন। আলিপুর থেকে যোগাযোগ ব্যবস্থা খারাপ হওয়ায় ভোরে আমরা তাদের আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের অবস্থার অবনতি ঘটলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

আহতদের স্বজন মাহমুদ জামান জানান, চা পান করিয়ে অচেতন করে ঘরে থাকা দুই লাখ টাকা ও স্বর্ণালংঙ্গার নিয়ে যায় প্রতিবেশী মলকুছ মিয়া।

এ বিষয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবু ইবনে সিনা ইকরাম জানান-মঙ্গলবার সকালে সাত বছরের এক শিশু সহ সাতজন রোগী আসেন। উনাদের ভাষ্য হচ্ছে গতকাল রাতে চা অথবা ভাতের সাথে তাদের কিছু খাওয়ানো হয়। এরপর থেকে উনারা অসুস্থবোধ করেন। আমরা পরীক্ষা নিরিক্ষা করে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাতজনকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করি।

এ বিষয়ে আজমিরীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. মনির হোসাইন বলেন, প্রাাথমিকভাবে আমরা তাদের পরিক্ষা নিরীক্ষা করে দেখেছি। মনে হচ্ছে খাবার অথবা অন্যকিছুর সাথে উনারা চেতনানাশক কিছু খেয়েছেন। আমরা তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102