বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৩৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
ভালো পরিবেশের জন্য ভালো সম্পর্ক গুরুত্বপূর্ণ: সেনাপ্রধান ড. মোমেনের নেতৃত্বে সিলেটে আসছে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি দল খালেদা জিয়া ও খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের রোগমুক্তিতে দোয়া মাহফিল তাহিরপুরে করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে পুলিশের মাইকিং শাবিতে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে অনশন শুরু শিক্ষার্থীদের নৌকার মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর উঠান বৈঠক সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে দূর্ঘটনায় চালক নিহত নগরীর টিলাগড়ে ভয়াবহ আগুন, দোকান পুড়ে ছাই সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জে ছুুরিকাঘাতে যুবক খুন সিলেটে মোটরসাইকেল-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবকের মৃত্যু ভয়ঙ্কর করোনা: ঢাকাসহ ১২ জেলাকে উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা উপাচার্য পদত্যাগ না করলে আমরণ অনশন ঘোষণা শিক্ষার্থীদের  দেশে করোনায় আরও ১০ মৃত্যু, সনাক্ত ৮,৪০৭ জন যেভাবে উদঘাটন শিমু হত্যার রহস্য

জর্ডানের সংসদে এমপিদের মারামারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সংসদে অধিবেশন চলাকালীন কিল-ঘুষিতে জড়িয়ে পড়েছেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ জর্ডানের আইনপ্রণেতারা। মঙ্গলবার সংসদ অধিবেশনে কয়েকজন আইনপ্রণেতার উত্তপ্ত বাক্য-বিনিময়ের পর মারামারি শুরু হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলছে, সংসদে অধিবেশন চলাকালীন একজন আইনপ্রণেতা বিতর্কিত মন্তব্য করেন। তার ওই মন্তব্য ঘিরে আইনপ্রণেতাদের মধ্যে তীব্র বাক-বিতণ্ডা শুরু হয়। পরে সংসদের স্পিকার ওই আইনপ্রণেতাকে সংসদ কক্ষ ত্যাগ করার আহ্বান জানান।

স্পিকারের এই আহ্বানের পর সংসদের বেশ কয়েকজন আইনপ্রণেতা একে অপরকে লক্ষ্য করে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। দেশটির সরকারি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত সংসদ অধিবেশনের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, কয়েকজন এমপি পরস্পরকে কিল-ঘুষি মারছেন। এ সময় ঘুষি খেয়ে একজন আইনপ্রণেতা মেঝেতে পড়ে যান।

জর্ডানের সংসদে এই মারামারি কয়েক মিনিট ধরে চলে। এ সময় সংসদ সদস্যরা চিৎকার চেঁচামেচিও করেন।

সংসদ অধিবেশন চলাকালীন একজন আইনপ্রণেতা বিতর্কিত মন্তব্য করায় কিলঘুষি শুরু হয়
দেশটির সংবিধানের প্রস্তাবিত সংশোধনী নিয়ে সংসদ অধিবেশনে বিতর্ক শুরু হয়। এই বিতর্কে অংশ নিয়ে একজন আইনপ্রণেতা বিতর্কিত মন্তব্য করেন।

পরে সংসদের অন্যান্য আইনপ্রণেতারা তাকে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইতে বলেন। কিন্তু ওই আইনপ্রণেতা ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করায় কিলঘুষি শুরু হয়। তবে কয়েক মিনিট ধরে কিল-ঘুষি চললেও তাতে কেউ আহত হননি।

সংসদ অধিবেশনের প্রত্যক্ষদর্শী ও আইনপ্রণেতা খলিল আতিয়েহ বলেন, কয়েকজন সংসদ সদস্যের বাক-বিতণ্ডা মুষ্টিযুদ্ধে রূপ নেয়। এ ধরনের আচরণ আমাদের জন্যগণের কাছে গ্রহণযোগ্য নয় এবং আমাদের দেশের সুনামের ক্ষতি করছে।

 

 

নতুনসিলেট২৪ডটকম / ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ / এএ

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102