রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:২৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
প্রবীণ আ’লীগ নেতা সৈয়দ আবু নছরের ইন্তেকাল, প্রধানমন্ত্রীর শোক রোববার সিলেট ও সুনামগঞ্জ আসছেন মির্জা ফখরুল সরকার উন্নয়নের পাশাপাশি খেলাধুলায় আন্তরিক : হাবিব সুনামগঞ্জে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে আরেকজন নিহত ফেসবুকে ইসলাম বিদ্বেষী পোস্ট, যুবক আটক ‘গোলাপগঞ্জ হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে দু:সময়ে মানুষের পাশে দাড়িয়েছে’ ‘দেশে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৭ কোটি’ সিলেটের সংস্কৃতির সাথে তুরস্কের সংস্কৃতি মিল রয়েছে : তুরস্ক রাষ্ট্রদূত সিলেটে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে, নিহত ১ হবিগঞ্জে ছুরির আঘাতে মাদ্রাসার ছাত্র আহত বড়লেখায় ভোক্তা অধিদপ্তরের জরিমানা ‘উন্নয়নের পথে বাধা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র চলছে’ কাল সিলেট-ঢাকা সড়কের ভিত্তিপ্রস্থর উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা জগন্নাথপুরে বৃদ্ধার আত্মহত্যা আবারো চালু হচ্ছে শিশুদের নতুন কুঁড়ি: তথ্যমন্ত্রী

দা হাতে ভাইরাল যুবতীর আত্মহত্যার হুমকি!

নতুন সিলেট প্রতিবেদক:
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
দা হাতে ভাইরাল যুবতীর আত্মহত্যার হুমকি! - Natun Sylhet

এবার স্বপরিবারে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন দা হাতে ভাইরাল হওয়া সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার কাড়াবাল্লা গ্রামের সালেহা বেগমের সেই যুবতী মেয়ে ও তার বোনরা।

 

সোমবার (১২ জুলাই) একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেইজের লাইভে এসে তারা আত্মহত্যার হুমকি দেন।

 

এসময় তিনি বলেন, গ্রামের মৃত তবারক আলীর ছেলে (ওই মেয়ের চাচা) মইন উদ্দিন লুথু ও তার সন্তানেরা তাদের রাস্তায় ঘর তৈরি প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন। তারা বার বার বিচার-সালিশ করলেও লুথু পক্ষের নির্যাতন বন্ধ হয়নি। লুথু ও তার সন্তানেরা প্রায়ই সালেহা বেগম ও তার মেয়েদের উত্যক্ত করতেন। তাদেরই জায়গায় টিনের ঘর নির্মাণ করায় তারা সে ঘর ভেঙে দেন।

 

লুথু ও তার ছেলেদের নির্যাতন সইতে পারছেন না উল্লেখ করে ওউ যুবতী বলেন, ‘আমরা এখন নিজেদের প্রাণ নিজেরা নেবো। আমাদের আর এসব নির্যাতন সহ্য হচ্ছে না। আমরা সুবিচার পাচ্ছি না।’

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বসতবাড়ির জায়গা নিয়ে কাড়াবাল্লা গ্রামের মৃত আব্দুন নুরের স্ত্রী ছালেহা বেগমের (৪৫) সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তার ভাসুর মৃত তবারক আলীর ছেলে মইন উদ্দিন লথুর বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে উভয়পক্ষের কয়েকটি মামলা আদালতে বিচারাধীন।

 

কয়েকদিন আগে ছালেহা বেগম সেই বিরোধপূর্ণ জায়গা থেকে বেশ কয়েকটি গাছ বিক্রি করেন। ক্রেতারা শ্রমিক নিয়ে গাছ কাটতে আসলে এতে বাধা প্রদান করেন ছালেহা বেগমের ভাসুর মইন উদ্দিন লুথু। এসময় বিষয়টি মীমাংসা করার উদ্যোগ নেন স্থানীয় মুরুব্বিরা।

 

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বসতবাড়ির জায়গা নিয়ে কাড়াবাল্লা গ্রামের মৃত আব্দুন নুরের স্ত্রী ছালেহা বেগমের (৪৫) সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে তার ভাসুর মৃত তবারক আলীর ছেলে মইন উদ্দিন লথুর বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে উভয়পক্ষের কয়েকটি মামলা আদালতে বিচারাধীন। কয়েকদিন আগে ছালেহা বেগম সেই বিরোধপূর্ণ জায়গা থেকে বেশ কয়েকটি গাছ বিক্রি করেন। ক্রেতারা শ্রমিক নিয়ে গাছ কাটতে আসলে এতে বাধা প্রদান করেন ছালেহা বেগমের ভাসুর মইন উদ্দিন লথু। এসময় বিষয়টি মীমাংসা করার উদ্যোগ নেন স্থানীয় মুরুব্বিরা।

 

অভিযোগ রয়েছে, এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছালেহা বেগমের ভাসুড় মইন উদ্দিন হামলার ঘটনাও ঘটান। ওই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়নি। নয়তো তিনিও নিন্দিত হতেন। ঘটনাটি সহ্য করতে না পেরে নারী হয়েও তারা প্রতিহত করতে চেষ্টা করে।

 

শুক্রবার (৯ জুলাই) বিকেল ৫ টার দিকে ছালেহা বেগম তার ছেলে-মেয়েসহ পরিবারের লোকজন ধারালো দা ও লাঠিসোটা হাতে মইন উদ্দিন লথুর টিনশেড বসতঘরে হামলা-ভাঙচুর শুরু করেন। মলা করে ছালেহা বেগম ও তার মেয়েরা ধারালো অস্ত্র ও বাঁশ দিয়ে মইন উদ্দিনের টিনশেডের ঘর এবং আসবাবপত্র গুড়িয়ে দেন। স্থানীয় অনেকে ঘটনাটি দেখলেও ছাহেলা বেগম ও তার মেয়েদের ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে পারেননি।

এদিকে, ভাঙচুরের পুরো দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড করেন স্থানীয়রা। পরে সেটি ভাইরাল হয়ে পড়লে কানাইঘাট ও সিলেটজুড়ে তোলাপাড় সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় শনিবার (১০ জুলাই) সকালে কানাইঘাট থানায় মামলা দায়ের করেন বসতঘরের মালিক মইন উদ্দিন  লুথু। পরে শনিবার বিকেলে আসামি ৫ নারী ও এক কিশোরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন- ছালেহা বেগম, তার মেয়ে নাজমিন বেগম কুলছুমা, সুমি বেগম, সুহাদা বেগম, রহিমা বেগম ও ছেলে নাসির উদ্দিন। পরদিন রোববার (১১ জুলাই) তাদের আদালতে প্রেরণ করলে গ্রেফতারকৃত এক নারীর সঙ্গে দুগ্ধপোষ্য শিশু থাকায় এবং দুজন আসামি নাবালিকা হওয়ায় সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (কানাইঘাট) আলমগীর হোসেন তাদের সবাইকে জামিন প্রদান করেন।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102