রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
এবার চাঁদে জমি কিনলেন সিলেটের সুজন! যুক্তরাজ্যে তিন দিনে ৩ বাংলাদেশি খুন, কমিউনিটিতে আতঙ্ক পুনর্বাসনেও কাজ হয়নি, ফের বেদখল ফুটপাত মহিউদ্দিন শিরু’র ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শানিবার শামিম-জাহিরের পরিকল্পনায় বুথ ভেঙে ডাকাতি সিলেটে দেবরের হাতে ভাবি খুন সিলেটে ব্যাংকের বুথ ভেঙে টাকা লুট- চার ডাকাতের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর সিলেটে ১৫ বছর পর চালু হচ্ছে শেখ হাসিনা পার্ক মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর হতে নির্দেশ হাবিবের ৪৩ বছর আগে কেনা শেয়ারের দাম উঠল ১,৪৪৮ কোটি সিসিকের ৮৩৯ কোটি টাকার বাজেট পেশ নৌকা বাইচ থেকে ফেরার পথে কানাইঘাটে দুর্ঘটনায় আহত ৫, নিখোঁজ ১ সিলেটে আরও ৫ মৃত্যু, আক্রান্ত সর্বনিম্ন সিলেটে পর্ণোভিডিও ভাইরালে জড়িত দুই আসামি গ্রেফতার সিলেটে রোগির মৃত্যু নিয়ে নিরাপত্তাকর্মী ও স্বজনদের সংঘর্ষ

বাসায় মদের আসর বসাতেন মডেল পিয়াসা-মৌ

নতুন সিলেট ডেস্ক:
  • আপডেট : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১
বাসায় মদের আসর বসাতেন মডেল পিয়াসা-মৌ - Natun Sylhet

আলোচিত মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা (৩০) ও মরিয়ম আক্তার মৌ (৪৩) নিয়মিত নিজেদের বাসায় নাচ-গানের আসর বসাতেন। নাচ-গানের এই আসরকে আরও প্রাণবন্ত করে তুলতে তাদের সংগ্রহে রাখতেন বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য৷

আসরে ডেকে আনা অথবা ইনভাইটেশনে আসা গেস্টদের কাছে অর্থের বিনিময়ে বিদেশি মদ, ইয়াবা ট্যাবলেট, নিষিদ্ধ সিসাসহ বিভিন্ন মাদক বিক্রি করতেন মডেল পিয়াসা ও মৌ।

রাজধানীর গুলশানের বারিধারা থেকে মডেল পিয়াসাকে ও মোহাম্মদপুরের বাবর রোডের বাড়ি থেকে মডেল মৌকে মাদকদ্রব্যসহ গ্রেফতারের পর প্রাথমিক অনুসন্ধানে এসব তথ্য পেয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (০১ আগস্ট) রাতে আলোচিত এই দুই মডেলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণে মদ, ইয়াবা ট্যাবলেট ও সিসা উদ্ধার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

সোমবার (০২ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর গুলশান থানায় মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসাকে আসামি করে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটা মামলা দায়ের করা হয়। ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাতনামা আরো ২-৩ জনকে আসামি করা হয়।

এদিকে মোহাম্মদপুরের বাবর রোডের বাসা থেকে গ্রেফতার হওয়া মডেল মরিয়ম আক্তার মৌয়ের বিরুদ্ধে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের পরিদর্শক শিশির কুমার কর্মকার বাদী হয়ে এই মামলাটি দায়ের করেন।

ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার (৩০) বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার (নম্বর-৩) এজাহারে উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম উল্লেখ করেন, রোববার (১ আগস্ট) রাত ৯টা ২৫ মিনিটে নতুন বাজার এলাকায় অবস্থান করার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি যে, কতিপয় মাদক কারবারি অবৈধ মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করতে নিজ নিজ হেফাজতে নিয়ে গুলশানের বারিধারা ডিপ্লোমেটিক জোনের ৯ নম্বর রোডের ৩ নম্বর বাসায় অবস্থান করছেন। এমন সংবাদ যাচাই করতে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সেখানে যাই। রাত ১০টার দিকে সাক্ষীদের উপস্থিতিতে এক নারীকে আটক করা হয়। তাদের উপস্থিতিতে আসামির ভাড়া বাসার উত্তর-পূর্ব কর্নার রুমে কথিত ৪টি হুক্কাকলকির (যা সিসাসহ বিভিন্ন নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবনের কাজে ব্যবহৃত হয়) পাশে একটি শপিং ব্যাগে রাখা অবস্থায় ৭৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ঘরের রেফ্রিজারেটরের ভেতরে একটি প্লাস্টিকের বক্সে রাখা অবস্থায় ভেষজ নির্যাস ক্যারামিল মিশ্রিত ফ্রুটস শ্লাইস, রান্নাঘরের কেবিনেটের বিভিন্ন বক্স থেকে ৮ বোতল বিদেশি মদ ও ৪ বোতল বিয়ার (যার মূল্য ৪৮ হাজার টাকা) জব্দ করা হয়।

আসামি পিয়াসাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি জানান, ঢাকা শহরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে এসব মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে তিনি বাসায় আনেন। তার বাসায় নাচ ও গানের আসর বসান এবং লোকজন ডেকে এনে অর্থের বিনিময়ে তাদের কাছে এসব মাদক বিক্রি করতেন। এই কাজে তাকে আরো কয়েকজন সহায়তা করতেন বলেও প্রাথমিকভাবে জানান আসামি মডেল পিয়াসা।

অপর দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় মডেল মরিয়ম আক্তার মৌয়ের বিরুদ্ধে দায়ের করা মাদক মামলার এজাহারে মামলার বাদী পরিদর্শক শিশির কুমার কর্মকার উল্লেখ করেন, রোববার (০২ আগস্ট) রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে মোহাম্মদপুর থানাধীন বাবর রোডের ২২৯ বাসার নিচতালার রুমে অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্যসহ এক নারীকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ তার নাম মরিয়ম আক্তার মৌ বলে জানা যায়।

মডেল মৌয়ের ঘরে কাঠের তৈরি ড্রেসিং টেবিলের নিচের ড্রয়ার থেকে নীল রঙের জিপার যুক্ত ৫টি প্যাকেটে মোট ৭৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, মাস্টার বেডরুমের বাথরুমের ভেতর থেকে বিভিন্ন ব্রান্ডের ১২ বোতল বিদেশি মদ, বাসার ড্রয়িং রুমে দেয়ালের কাচের আলমারি থেকে মদ পানের জন্য ব্যবহৃত ১০টি লং কাচের গ্লাস, ১২টি কাচের গ্লাস, ১টি স্টিলের আইস বক্স, কাচের খালি বোতল ১টি জব্দ করা হয়।

মৌ জানান, তার বাসায় নাচ ও গানের আসর বসে এবং লোকজন ডেকে এনে অর্থের বিনিময়ে তাদের কাছে মদ, ইয়াবাসহ অন্যান্য নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য বিক্রয় করেন।

মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌ দু’জনের বাসায় ইয়াবা ট্যাবলেট, বিদেশি মদ, মদ খাওয়ার সরঞ্জাম বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিজ হেফাজতে রেখে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) এর টেবিল ১০(ক)২৪(খ)৪১ ধারায় অপরাধ করেছেন।

এদিকে সোমবার (০২ আগস্ট) বিকেলে আলোচিত এই দুই মডেলকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতের কাছে ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়। রিমান্ড শুনানীতে আদালত তাদের প্রত্যেককে ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ডিএমপির গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মহিদুল ইসলাম  জানান, কিছু সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার বাসায় অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ পিয়াসাকে আটক করা হয়।

পিয়াসাকে আটকের পর ডিবির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মহিদুল ইসলাম জানান, কিছু সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার বাসায় অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ পিয়াসাকে আটক করা হয়েছে।

পরে পিয়াসাকে সঙ্গে নিয়ে মোহাম্মদপুরে মডেল মৌয়ের বাসায় অভিযান চালায় ডিবি। সেখান থেকেও বিপুল পরিমাণ মদসহ বিভিন্ন মাদক জব্দ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...
© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102