রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
এবার চাঁদে জমি কিনলেন সিলেটের সুজন! যুক্তরাজ্যে তিন দিনে ৩ বাংলাদেশি খুন, কমিউনিটিতে আতঙ্ক পুনর্বাসনেও কাজ হয়নি, ফের বেদখল ফুটপাত মহিউদ্দিন শিরু’র ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী শানিবার শামিম-জাহিরের পরিকল্পনায় বুথ ভেঙে ডাকাতি সিলেটে দেবরের হাতে ভাবি খুন সিলেটে ব্যাংকের বুথ ভেঙে টাকা লুট- চার ডাকাতের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর সিলেটে ১৫ বছর পর চালু হচ্ছে শেখ হাসিনা পার্ক মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর হতে নির্দেশ হাবিবের ৪৩ বছর আগে কেনা শেয়ারের দাম উঠল ১,৪৪৮ কোটি সিসিকের ৮৩৯ কোটি টাকার বাজেট পেশ নৌকা বাইচ থেকে ফেরার পথে কানাইঘাটে দুর্ঘটনায় আহত ৫, নিখোঁজ ১ সিলেটে আরও ৫ মৃত্যু, আক্রান্ত সর্বনিম্ন সিলেটে পর্ণোভিডিও ভাইরালে জড়িত দুই আসামি গ্রেফতার সিলেটে রোগির মৃত্যু নিয়ে নিরাপত্তাকর্মী ও স্বজনদের সংঘর্ষ

সিলেট-৩ আসনে নৌকার মাঝি হাবিবের চমক

নতুন সিলেট প্রতিবেদক:
  • আপডেট : রবিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সিলেট-৩ আসনে নৌকার মাঝি হাবিবের চমক - Natun Sylhet

সিলেট-৩ আসনে উপ নির্বাচন

সিলেট-৩ আসনে উপ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব।তিনি ৬৫ হাজার ৩১২ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৯০ হাজার ৬৪। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান আতিক পেয়েছেন ২৪ হাজার ৭৫২ ভোট।

শনিবার (০৪ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ৯টায় ভোটের চুড়ান্ত ফলাফলে হাবিবুর রহমান হাবিবকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজি এমদাদুল ইসলাম।

সিলেট-৩ আসনে ১৪৯ কেন্দ্রের চুড়ান্ত ফলাফলে অপর দুই প্রার্থী বিএনপি থেকে বহিস্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী মটরগাড়ি (কার) মার্কায় ৫ হাজার ১৩৫ ভোট এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া ডাব প্রতীকে ৬৪০ ভোট পেয়েছেন। এ আসনে ৩ লাখ ৪৯ হাজার ৮৭৩ ভোটারের মধ্যে বৈধ ভোটের সংখ্যা ১ লাখ ২০ হাজার ৫৯১ টি। কোনো ভোট বাতিল হয়নি। আর প্রদত্ত ভোটের হার ৩৫ শতাংশ বলেও জানান রিটানিং কর্মকর্তা।

নির্বাচনী চুড়ান্ত ফলাফলে দেখা যায়, সিলেট-৩ নির্বাচনী এলাকার দক্ষিণ সুরমার ৭৯ টি কেন্দ্রের মধ্যে নৌকা মার্কায় হাবিবুর রহমান হাবিব ৪৩ হাজার ৮৯৪ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রার্থী জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান লাঙ্গল প্রতীকে ১৬ হাজার ৬১২ ভোট পেয়েছেন। অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে বিএনপি থেকে বহিস্কৃত আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী মোটর কার মার্কায় ৪ হাজার ৪২২ ভোট এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া ডাব প্রতীকে ৩৮১ ভোট পেয়েছেন।

নির্বাচনী এলাকার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ৩৬টি কেন্দ্রে নৌকা ২১ হাজার ৮৯৭ ভোট, লাঙ্গল ৪ হাজার ৭৮৩ ভোট, মোটর কার ৩৯৩ এবং ডাব মার্কা ১২৮ ভোট পড়েছে।

বালাগঞ্জ উপজেলার ৩৪ টি কেন্দ্রে নৌকা মার্কা ২৪ হাজার ২৭৩ ভোট, লাঙ্গল প্রতীকে ৩ হাজার ৩৫৭ ভোট, মোটর কার প্রতীকে ৩২০ এবং ডাব প্রতীকে ১৩৩ ভোট পড়েছে।

ফলাফল ঘোষণাকালে কন্ট্রোল রুমে হাজির হন জাতীয় পার্টির প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক। সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি অংশগ্রহনমূলক নির্বাচন অনেকটা সুন্দর পরিবেশে হয়েছে বলে মন্তব্য করেন। তিনি হাবিবুর রহমান হাবিবের বিজয় সুনিশ্চিত ধরেই সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। তবে নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণে খানিকটা অসন্তুষ প্রকাশ করে বলেন, ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দিতে গিয়ে মানুষ কিছুটা বিভ্রান্ত হয়েছে। ২/৩টি বাটনে চাপ দেওয়ার বিষয়টি আমজনতার বুঝতে অসুবিধা হয়েছে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের নির্বাচনী কর্মকর্তা ও এজেন্টরা যেখানে দেখিয়ে দিয়েছেন, সেখানেই মানুষ ভোট দিয়েছে। তাই নির্বাচন কমিশনের উচিত কেবলমাত্র একটি বাটন রাখা যাতে টিপ দিলেই ভোট হয়ে যায়।

ফলাফল ঘোষনাকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক এম. কাজি এমদাদুল ইসলাম বলেন, সিলেটের মানুষ সব সময় শান্তি প্রিয়। ১৪৯ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হলেও কোনো ধরণের বিশঙ্খলার ঘটনা ঘটেনি। এতেই বুঝা যায় সিলেটের মানুষের মধ্যে সব সময় সম্প্রীতি বিরাজমান থাকে।

বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণার পর হাবিবুর হাবিব মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে শুকরিয়া আদায় করে বলেন, যার জন্ম না হলে বাঙ্গালী জাতি স্বাধীন হতো না। সেই মহান নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। ১৯৭৫ সালে বেগম ফজিলতুন্নেছা মুজিবসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সকল শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, যার কারণে আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি, তিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশনেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমাদের ছোট আপা বঙ্গবন্ধুর আরেক কন্যা শেখ রেহানা। তিনি ফোন করে আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।  রাজনীতির জীবনে দিনটি তার জন্য সবচেযে সুখের দিন বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আজ আমার বাবা-মা বেঁচে থাকলে সবচেয়ে বেশি খুশি হতেন। তাঁর এই বিজয়ের পেছনে আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীদের শ্রমঘাম জড়িত মন্তব্য করে বলেন, তাদের প্রচেষ্টা এবং নির্বাচনী এলাকা দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জের মানুষ ভালবেসে তাকে বিজয়ী করেছেন। সিলেটের সাংবাদিকদেরও এই বিজয়ের পেছনে অনস্বীকার্য ভূমিকা রয়েছে। সাংবাদিক ভাইয়েরা তাদের লেখনীর মাধ্যমে আমি হাবিবকে সৃষ্টি করেছেন। এই প্রতিদান শোধ করার নয়।

এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীকে স্মরণ করে বলেন, তিনি বেঁচে থাকলে হয়তো আমার নির্বাচন করা হতো না। তার অসম্পন্ন কাজ করতে চাই। এসময় প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, তাঁর সহযোগীতার কারণে আমি মনোনয়ন পেয়েছি। শেখ রেহানা আপাও বলেছেন, হাবিবুর রহমান তোমার ভাই। তাই তার হাতে হাত রেখে রাজনীতির ময়দানে চলতে চাই। এই বিজয়ক্ষণে আনোয়ারুজ্জামানের উপস্থিতি তাকে অনুপ্রাণিত করতো, আরো বেশি খুশি হতেন বলে মন্তব্য করেন।

চলতি বছরের ১১ মার্চ করোনায় এ আসনটির সাংসদ আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী মারা যান। সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১২৩ এর দফা (৪) অনুযায়ী, উক্ত শূন্য আসনে ৮ জুনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও করোনার কারণে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় শূন্য আসনটিতে ৮ জুন পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য তফসিল ঘোষণা করে ইসি। সেই তফসিল অনুযায়ী গত ২৮ জুলাই এই আসনের উপনির্বাচন ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এর দুদিন আগে ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন আদালত। পরবর্তীতে ৪ সেপ্টেম্বর ভোটগ্রহণের দিন ধার্য্য করে ইলেকশন কমিশন।

 প্রথমবারের দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৩ আসনের নির্বাচনে ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ভোট  গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়।  এদিন সকাল টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত কোনো ধরণের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে অনেকটা নিরুত্তাপ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।এ আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব, জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান আতিক, বিএনপি থেকে বহিস্কৃত ও সাবেক সাংসদ শফি আহমেদ চৌধুরী এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের জুনায়েদ মোহাম্মদ মিয়া।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...
© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102