রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:০৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
‘বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি এ দেশের অমূল্য সম্পদ’ খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে গবেষণায় গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ শেখঘাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিদর্শনে পরিকল্পনামন্ত্রী আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতায় রাহুলের স্বর্ণপদক জয়  ৬শ’ কোটিতে ৩২০ কোরিয়ান এসি বাস কিনবে সরকার সৌদি জোটের হামলায় ইয়েমেনে নিহত ১৬০ সিলেটে কাল যেসব এলাকায় থাকবে না বিদ্যুৎ শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার-পরিকল্পনামন্ত্রী মহানবীর জীবনাদর্শে মুক্তি নিহিত-শফিকুর রহমান চৌধুরী শাবির নৃবিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক জাকারিয়া ছাত্রলীগের কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে গোলাপগঞ্জে আনন্দ মিছিল সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সাম্প্রদায়িকতা রুখতে হবে-্অ্যাডভোকেট জামান জুমার দিনের সুন্নাত আমল সিলেটে এবার প্লাকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে রাস্তায় ছাত্রলীগ

সিলেটে দেবরের হাতে ভাবি খুন

নতুন সিলেট প্রতিবেদক:
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
সিলেটে দেবরের হাতে ভাবি খুন - Natun Sylhet

সিলেটের সীমান্তবর্তী জৈন্তাপুরে সোনারা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে খুন করেছে তারই সৎ দেবর আব্দুল করিম (৪০)। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলায় দরবস্ত ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ফরফরা গ্রামে ঘটনা ঘটে। নিহত সোনারা বেগম (৪৫) ওই গ্রামের তোরাব আলীর স্ত্রী। ঘটনার পর খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত প্রবাস ফেরত আবদুল করিম(৪০) ও তার স্ত্রী শিরিন বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, তোরাব আলী ও তার সৎ ভাই করিমের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে বাড়ির জায়গা ও জমিজমা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বিরোধ ছিল। প্রবাস থেকে ফেরার পর করিম ও তার স্ত্রী বিভিন্ন সময় বড় ভাইয়ের পরিবারের সঙ্গে ঝগড়া বিবাদে মেতে ছিল। এরআগেও সে হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। ভাইয়ের পরিবারকে শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। কিন্তু বৃহস্পতিবার ঝগড়া বাধলে ছুরা দিয়ে গাঢ়ের পেছনে আঘাত করলে সোনারা বেগম ঘটনাস্থলে মারা যান। এ ঘটনায় তার স্বামীও আহত হয়েছেন।

সিলেটের জৈন্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি গোলাম মোহাম্মদ দস্তগীর খুনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জমিজমা ভাগাভাগি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ভাবি সোনারা বেগমকে ছুরিকাঘাত করে খুন করেন করিম। এ ঘটনায় করিম ও তার স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। খুনের ঘটনায় ব্যবহৃত ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল লেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সিলেটের পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন বলেন, করিম বিদেশ থেকে আাসার সময় স্টীলের একটি ছোরা নিয়ে আসেন। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সে এবং তার স্ত্রী বড় ভাই তোরাব আলী ও তার স্ত্রীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে সোনারা বেগমের গাঢ়ের পেছনে ছুরা দিয়ে আঘাত করলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তিনি ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। ঘটনার পর পরই পুলিশ আসামিদের ধরতে সক্ষম হয়েছে।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102