শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪৯ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
‘বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি এ দেশের অমূল্য সম্পদ’ খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে গবেষণায় গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ শেখঘাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিদর্শনে পরিকল্পনামন্ত্রী আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতায় রাহুলের স্বর্ণপদক জয়  ৬শ’ কোটিতে ৩২০ কোরিয়ান এসি বাস কিনবে সরকার সৌদি জোটের হামলায় ইয়েমেনে নিহত ১৬০ সিলেটে কাল যেসব এলাকায় থাকবে না বিদ্যুৎ শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার-পরিকল্পনামন্ত্রী মহানবীর জীবনাদর্শে মুক্তি নিহিত-শফিকুর রহমান চৌধুরী শাবির নৃবিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক জাকারিয়া ছাত্রলীগের কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে গোলাপগঞ্জে আনন্দ মিছিল সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সাম্প্রদায়িকতা রুখতে হবে-্অ্যাডভোকেট জামান জুমার দিনের সুন্নাত আমল সিলেটে এবার প্লাকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে রাস্তায় ছাত্রলীগ

যেসব অভ্যাস ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়

নতুন সিলেট ডেস্ক:
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৫ অক্টোবর, ২০২১
যেসব অভ্যাস ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায় - Natun Sylhet

জীবনযাপনের বিভিন্ন অভ্যাসের কারণে ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়তে পারে। অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ থেকে শুরু করে বিভিন্ন কারণেই নারী-পুরুষ নির্বিশেষে স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়তে পারে।

ধূমপান: সিগারেট খাওয়া ক্ষতিকর অভ্যাস। এই অভ্যাস কেবল স্ট্রোকেরই ঝুঁকি বাড়ায় না এটি হার্টের স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর।

জন হপকিন্স মেডিসিনের বিশেষজ্ঞদের মতে, ধূমপান ব্রেইন স্ট্রোকের ঝুঁকি দ্বিগুণ বাড়ায়।

শারীরিক পরিশ্রম না করা: নিয়মিত ব্যায়াম না করার ফলে ওজন বেড়ে যায় এবং স্থূলতা দেখা দেয়। এর কারণে বড় ধরনের অসুখ দেখা দিতে পারে। এটি স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় এবং অন্যান্য জটিল রোগের জন্যও দায়ী।

নিয়মিত ব্যায়াম করা, স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ এবং অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের অভ্যাস পরিহার করলে জীবনের ঝুঁকি কমে যায়।

অ্যালকোহল পান: অ্যালকোহল জাতীয় পানীয় পানের কারণে স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। এটি উচ্চ রক্ত চাপ বৃদ্ধির জন্যও দায়ী।

অন্যান্য শারীরিক জটিলতাও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়: দুশ্চিন্তা, উচ্চ কোলেস্টেরল, ডায়াবেটিস, অনিয়মিত হৃৎস্পন্দন এগুলোর কারণেও স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

জন হপকিন্স মেডিসিনের গবেষকদের মতে, জন্মনিরোধক ওষুধ সেবনের কারণে স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়তে পারে।

যদি হঠাৎ কারো হাত, পা বা শরীরের কোনো একটা দিক অবশ, অসাড় লাগে বা চোখে দেখতে বা কথা বলতে অসুবিধা হয় অথবা ঢোক গিলতে কষ্ট হয়, সেক্ষেত্রে কোনো ঝুঁকি না নিয়ে দ্রুত চিকিত্সকের শরণাপন্ন হতে হবে।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102