শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
‘বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি এ দেশের অমূল্য সম্পদ’ খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে গবেষণায় গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ শেখঘাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ পরিদর্শনে পরিকল্পনামন্ত্রী আন্তর্জাতিক ডিজাইন প্রতিযোগিতায় রাহুলের স্বর্ণপদক জয়  ৬শ’ কোটিতে ৩২০ কোরিয়ান এসি বাস কিনবে সরকার সৌদি জোটের হামলায় ইয়েমেনে নিহত ১৬০ সিলেটে কাল যেসব এলাকায় থাকবে না বিদ্যুৎ শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার-পরিকল্পনামন্ত্রী মহানবীর জীবনাদর্শে মুক্তি নিহিত-শফিকুর রহমান চৌধুরী শাবির নৃবিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক জাকারিয়া ছাত্রলীগের কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে গোলাপগঞ্জে আনন্দ মিছিল সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সাম্প্রদায়িকতা রুখতে হবে-্অ্যাডভোকেট জামান জুমার দিনের সুন্নাত আমল সিলেটে এবার প্লাকার্ড ও ফেস্টুন নিয়ে রাস্তায় ছাত্রলীগ

এমসির ধর্ষণকান্ডে আলোচিত সেই নাজমুল জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি

নতুন সিলেট প্রতিবেদক :
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
এমসির ধর্ষণকান্ডে আলোচিত সেই নাজমুল জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি - Natun Sylhet

দেশজুড়ে আলোচিত ঘটনা ছিল সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসের ধর্ষণকাণ্ড। এ ঘটনায় জড়িতদের পাশাপাশি নেপথ্যের কুশীলবদের ধরতে জোরালো দাবি ওঠে রাজপথে।

তবে নেপথ্যের খলনায়করা অধরাই থেকে যান। ধর্ষণকাণ্ডে জড়িতদের নেতা নাজমুল ইসলামকে করা হয়েছে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি।
সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য জেলা ও মহানগর কমিটির অনুমোদন দেন।

নাজমুল ইসলামকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও রাহেল সিরাজকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। আর মহানগর কমিটিতে কিশওয়ার জাহান সৌরভকে সভাপতি ও মো. নাঈম আহমদকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদে স্থান পেয়েছেন সিলেট ছাত্রলীগের ৬ নেতা। জেলা থেকে জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান, বিপ্লব কান্তি দাস, মুহিবুর রহমান মুহিব ও কনক পাল অরূপ এবং মহানগর থেকে হুসাইন মোহাম্মদ সাগর ও সঞ্জয় পাশী জয়কে কেন্দ্রীয় সদস্য করা হয়েছে।

তবে বিতর্কিত নাজমুল ও রাহেল সিরাজকে কমিটিতে রাখায় তাৎক্ষণিকভাবে কেন্দ্রীয় সদস্য পদ প্রত্যাখ্যান করেছেন ছাত্রলীগ নেতা জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান ও মুহিবুর রহমান মুহিব।

কমিটি ঘোষণার পর সিলেট ছাত্রলীগে বিদ্রোহ ছড়িয়ে পড়ে। ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করেছেন, সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। কমিটির বিরুদ্ধে ঝাড়ু প্রদর্শনও করেছেন তারা।

বিক্ষোভ মিছিল শেষে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার হোসেন সামাদ বলেন, ঘোষিত কমিটির সভাপতি এমসির ছাত্রাবাসে তরুণী ধর্ষণের মূলহোতা। আর সাধারণ সম্পাদক ক্লাস ফাইভ পাস করেছে কিনা সন্দেহ। অসংখ্য চেক ডিজওনার মামলারও আসামিও সে। ধর্ষকদের শেল্টারদাতা, চোর-বাটপারদের দিয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে পূণ্যভূমি সিলেটকে কলুষিত করতে জেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে দেওয়া হয়েছে। আমরা এই কমিটি আশা করিনি, মেনে নেওয়ার প্রশ্নই আসে না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ সব সময় ছাত্রত্ব দেখে ছাত্রলীগের কমিটির দায়িত্ব দেওয়ার কথা। কিন্তু যাদের কোনো ছাত্রত্ব নেই তাদের রেখেই কমিটি দেওয়া হয়েছে।

মাদক, এমসির ধর্ষণকাণ্ড, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, নারী নির্যাতনসহ নানা অপরাধের কারণে আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল। দলীয় সূত্র জানায়, এমসির বহুল আলোচিত ধর্ষণকাণ্ডে আস%

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102