বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৪১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
খালেদার অসুস্থতাকে পুঁজি করে বিএনপি আন্দোলন করছে-প্রধানমন্ত্রী বিশ্বনাথে পুকুরে ডুবে প্রতিবন্ধী যুবতীর মৃত্যু মৌলভীবাজারে ইটভাটা শ্রমিককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা `কর্মগুনে সবার প্রিয় হয়ে উঠেছেন অ্যাডভোকেট জালাল’ কর্মী প্রেরণে বাংলাদেশ-বসনিয়া সমঝোতা আলোচনায় সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত: প্রতিরক্ষা প্রধানসহ নিহত ১৩ তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ যুবক আটক জাতির পিতার আদর্শে তরুণ প্রজন্মকে প্রস্তুত করতে যুবলীগকে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৫৭ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন : ডব্লিউএইচও বিয়ের মঞ্চে কনের সিঁথিতে প্রেমিকের সিঁদুর! সিলেটে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ভারতে প্রতিরক্ষা প্রধানবাহী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, নিহত ৪ তাহিরপুরে শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা আ. লীগ জনগণের দল, শেখ হাসিনার সরকার জনগণের সরকার : শিক্ষামন্ত্রী

মাশরাফির কথা পাত্তা দিচ্ছেন না গিবসন

স্পোর্টস ডেস্ক :
  • আপডেট : বুধবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২১
মাশরাফির কথা পাত্তা দিচ্ছেন না গিবসন - Natun Sylhet

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৭১ রান করেও হেরেছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের মিশনে এমন হার মেনে নিতে পারছেন না ক্রিকেট ভক্তরা। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকেই এই হারের জন্য দায়ী করছেন তারা। তার সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্তের অভাবে দল হেরেছে ভাবছেন ভক্ত থেকে শুরু করে ক্রিকেট বোদ্ধারা। তবে টাইগারদের এমন বাজে সময়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন সফল সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি এই হারের জন্য দায়ী করেছেন দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকেই। শুধু তাই নয়, দলের দক্ষিণ আফ্রিকার কোচদের নিয়েও তিনি করেছেন কঠোর সমালোচনা। তবে মাশরাফির এমন সব সমালোচনাকে পাত্তাই দিচ্ছেন দলের বিদেশি কোচরা।

গতকাল ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন টাইগারদের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন। তিনি বলেন, ‘এটা (সমালোচনা) নিয়ে আমার কোনো ভাবনাই নেই। দলের বাইরে কে কি বলছে- এটা নিয়ে আমাদের কারো এখন আগ্রহ বা ভাবনা নেই। আমরা জানি দলের কোচ হিসেবে আমরা এখানে কী করতে এসেছি। তাই দলের বাইরে কে কি বললো তা এখানে কোনো ভূমিকা রাখছে না।’

বাছাই পর্ব দিয়েই বিশ্বকাপের মিশন শুরু করে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল। কিন্তু প্রথম ম্যাচেই স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে শঙ্কা তৈরি করে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার। পরে অবশ্য ওমান ও পিএনজিকে হারিয়ে এই যাত্রায় রক্ষা পায় বাংলাদেশ। ওমান থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আসে বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে অংশ নিতে। তবে এখন পর্যন্ত টাইগারদের পারফরম্যান্স সন্তোষজনক নয়। চার ম্যাচে জিতেছে মাত্র দু’টিতে। এমন সময়ে দেশের ক্রিকেট অঙ্গনেও বইছে অস্বস্তিকর হাওয়া। আর সেই হাওয়াকে আরো উত্তপ্ত করে তুলেছেন মাশরাফি। দলে কোচদের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সাবেক এই অধিনায়ক। তার মতে, কোচরা তাদের দায়িত্ব ঠিকভাবে পালন না করায় বাড়তি চাপ পড়ছে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ওপর। শ্রীলঙ্কা ম্যাচ নিয়ে তার দর্শন এমনই। সমপ্রতি ফেসবুক স্ট্যাটাসে ক্ষুব্ধ মাশরাফি লিখেছেন, ‘পানি পানের বিরতিতে কোচ মাঠের ভেতর এসেছিল। রিয়াদের সঙ্গে কী কথা বলেছিল? কথা বলে থাকলে, সব দায় কি রিয়াদের? গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে কি কোচ কোনো আলোচনা করে না? অধিনায়ক তখন বিভিন্ন বিষয়ে চাপে থাকে। অধিনায়কের পরিকল্পনা কি কোচ জানতে চেয়েছিল? যদি কথা হয়ে থাকে, তাহলে সংবাদ সম্মেলন কি তার সামলানো উচিত ছিল না? সেখান (সংবাদ সম্মেলন) থেকেই রিয়াদের ভুল ধরা হয়েছে।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের অন্যতম কারণ লিটন দাসের ছেড়ে দেয়া দু’টি ক্যাচ। দাবি উঠেছে তাকে যেন পরের ম্যাচে বিশ্রাম দেয়া হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিটনকে নিয়ে ভক্তদের বড় অংশ চালাচ্ছেন উপহাস। এই দুঃসময়ে দলের সমর্থন পাচ্ছেন তারকা এই ওপেনার। উইকেটরক্ষক ব্যাটার লিটন দলে অন্যতম সেরা ফিল্ডার হিসেবেই বিবেচ্য। তার ক্যাচ হাতছাড়ার মাশুল গুনে বাংলাদেশ ম্যাচ হারলেও পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন জানালেন, দল লিটনের পাশে আছে এবং সবসময়ই তার গুরুত্ব তুলে ধরছে। তিনি বলেন, ‘লিটন আমাদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, অনেক দিন ধরেই। সে আমাদের সেরা ফিল্ডারদের একজন। দু’টি ক্যাচ হাতছাড়ায় দলে তার অবদান খর্ব করছে না। লিটনের মতো এমন ভুল করতে পারেন যে কেউই। তাই এই বিষয়টি নিয়ে দলের দুর্ভাবনা নেই, জানিয়ে দিলেন স্পষ্টভাবে। এই দুই ক্যাচ ধরলে ম্যাচের ফলাফল বদলে যেতে পারতো- এ কারণেই লিটনকে নিয়ে এত সমালোচনা হচ্ছে। আমরা তাকে সমর্থন দিচ্ছি। তার মান সম্পর্কে মনে করিয়ে দিচ্ছি, তার গুরুত্ব ও ভূমিকা বোঝাচ্ছি। লিটনের জায়গায় অন্য খেলোয়াড় হলেও তাই হতো।’

শুধু তাই নয়, পরের ম্যাচেই লিটন ফিল্ডিংয়ে আবারও দারুণ পারফর্ম করলে তাকে নিয়ে চলমান সব সমালোচনা বন্ধ হয়ে যাবে, এমন দাবিও গিবসনের। তিনি বলেন, ‘দলের বাইরে কী হচ্ছে তা আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মানুষ কী বলছে তা তো আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো না। দলের মধ্যে যা আছে তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। আরও চারটি ম্যাচ আছে। কাল একটি ভালো ক্যাচ ধরলেই সবাই তাকে নিয়ে ভাবনা বদলে ফেলবে।’

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102