বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
চোখে টর্চলাইটের আলো ফেলা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ৫০ হারের নিয়তি খণ্ডাতে পারেনি বাংলাদেশ নারী-পুরুষ সমানভাবে কাজ করছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী আমিরাতে বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী দিবস উদযাপন ৬ মাস রাতে বন্ধ থাকবে ঢাকার রানওয়ে, জরুরি অবতরণ সিলেটে খালেদার অসুস্থতাকে পুঁজি করে বিএনপি আন্দোলন করছে-প্রধানমন্ত্রী বিশ্বনাথে পুকুরে ডুবে প্রতিবন্ধী যুবতীর মৃত্যু মৌলভীবাজারে ইটভাটা শ্রমিককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা `কর্মগুনে সবার প্রিয় হয়ে উঠেছেন অ্যাডভোকেট জালাল’ কর্মী প্রেরণে বাংলাদেশ-বসনিয়া সমঝোতা আলোচনায় সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত: প্রতিরক্ষা প্রধানসহ নিহত ১৩ তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ যুবক আটক জাতির পিতার আদর্শে তরুণ প্রজন্মকে প্রস্তুত করতে যুবলীগকে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৫৭ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন : ডব্লিউএইচও

ছোট ভাইয়ের কোদালের আঘাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যু

নতুন সিলেট প্রতিবেদক :
  • আপডেট : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১
ছোট ভাইয়ের কোদালের আঘাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যু - Natun Sylhet

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ছোট ভাইয়ের কোদালের আঘাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। নিহত ব্যাক্তি উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী রজনী লাইন গ্রামের সোরাব মিয়ার বড় ছেলে হারিছ মিয়া (৩০)। শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে সিলেট এম এজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে শনিবার সকাল ১১টার দিকে ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাঁড়ি ক্যাম্প ইনচার্জ এএসআই খাইরুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) উপজেলার রজনী লাইন গ্রামের সোরাব মিয়ার ছোট ছেলে সেলিম মিয়ার (২৭) স্ত্রী তানজিমা বেগম সকালে বড় ভাই হারিছ মিয়ার টিউবওয়েলে গোসল করতে যান। এ সময় বড় ভাই হারিছ মিয়া ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে এখানে গোসল করতে নিষেধ করেন এবং টিউবওয়েলের চারদিকে পর্দা দেওয়া কাপড় খুলে নিয়ে যান। পরে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী নিজ বসত ঘরে গিয়ে কান্নারত অবস্থায় তার স্মামী সেলিম মিয়াকে বিষয়টি জানায়। সেলিম মিয়া তার স্ত্রীর কথা শুনে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘর থেকে বের হয়ে বাড়ির উঠানে থাকা কোদাল দিয়ে বড় ভাইয়ের মাথায় আঘাত করেন। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়ে মাঠিতে লুঠিয়ে পড়েন।

পরে পরিবারের অন্য লোকজন তাকে স্থানীয় গ্রামের পল্লী চিকিৎসক একবাল হোসেন নামে একজনের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এখানে দুইদিন চিকিৎসায় কোন উন্নতি না হওয়ায় শুক্রবার দুপুরে সিলেট এমএজি উসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। শুক্রবার সন্ধায় তিনি চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

উত্তর বড়দল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কাসেম বলেন, ছোট ভাইয়ের কোদালের আঘাতে বড় ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে বলে গ্রামের লোকজন আমাকে জানিয়েছেন।

তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার এ বিষয়ে বলেন, এ ধরনের ঘটনার বিষয়ে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। তবে, বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102