বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:০৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
খালেদার অসুস্থতাকে পুঁজি করে বিএনপি আন্দোলন করছে-প্রধানমন্ত্রী বিশ্বনাথে পুকুরে ডুবে প্রতিবন্ধী যুবতীর মৃত্যু মৌলভীবাজারে ইটভাটা শ্রমিককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা `কর্মগুনে সবার প্রিয় হয়ে উঠেছেন অ্যাডভোকেট জালাল’ কর্মী প্রেরণে বাংলাদেশ-বসনিয়া সমঝোতা আলোচনায় সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত: প্রতিরক্ষা প্রধানসহ নিহত ১৩ তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ যুবক আটক জাতির পিতার আদর্শে তরুণ প্রজন্মকে প্রস্তুত করতে যুবলীগকে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৫৭ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন : ডব্লিউএইচও বিয়ের মঞ্চে কনের সিঁথিতে প্রেমিকের সিঁদুর! সিলেটে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ভারতে প্রতিরক্ষা প্রধানবাহী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, নিহত ৪ তাহিরপুরে শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা আ. লীগ জনগণের দল, শেখ হাসিনার সরকার জনগণের সরকার : শিক্ষামন্ত্রী

একবার রক্ত পরীক্ষায় শনাক্ত হবে ৫০টির বেশি ধরনের ক্যান্সার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১
একবার রক্ত পরীক্ষায় শনাক্ত হবে ৫০টির বেশি ধরনের ক্যান্সার! - Natun Sylhet

একবার রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমেই শনাক্ত করা সম্ভব হবে ৫০টিরও বেশি ধরনের ক্যান্সার। যুগান্তকারী এই উদ্ভাবন শিগগিরই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়লে ক্যান্সার শনাক্ত ও চিকিৎসায় বড় ধরনের পরিবর্তন আসবে। এতে বাঁচবে বহু জীবন।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক বায়োটেকনোলজি কোম্পানি ‘গ্রেইল’ ক্যান্সার শনাক্তে ‘গ্যালেরি’ নামের এই রক্ত পরীক্ষা উদ্ভাবন করেছে।

কোম্পানিটির বরাত দিয়ে ডেইলি সাবাহ বলছে, রোগী থেকে দুই টিউব রক্ত নিয়ে পরীক্ষার মাধ্যমে ৫০টিরও বেশি ধরনের ক্যান্সার শনাক্ত করা সম্ভব হবে। ল্যাবে রক্ত পাঠানোর পর ১০ দিনের মধ্যেই মিলবে ফলাফল।

এই বছরের শেষ নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় এই রক্ত পরীক্ষার সুযোগ পাওয়া যাবে।

এদিকে যুক্তরাজ্যে সেপ্টেম্বর মাসে এই রক্ত পরীক্ষার সবচেয়ে বড় ট্রায়াল শুরু হয়েছে। দেশটিতে ১ লাখ ৪০ হাজার মানুষের অংশগ্রহণে এই ট্রায়াল চলছে।

এই রক্ত পরীক্ষার উদ্দেশ্য শুরুতেই ক্যান্সারের লক্ষণ খুঁজে বের করা, বিশেষ করে ফুসফুস, অগ্ন্যাশয় এবং পাকস্থলীর ক্যান্সারের মতো যেসব ক্যান্সার শুরুতেই শনাক্ত করা কঠিন।

ক্যান্সারের কারণে কোনো ধরনের সূক্ষ্ম পরিবর্তন এসেছে কি না এই পরীক্ষা তা শনাক্ত করতে পারে জেনেটিক কোডের কোনো অংশে কেমিক্যালের পরিবর্তন চিহ্নিত করার মাধ্যমে যা টিউমার থেকে রক্তনালীতে ছড়িয়ে পড়ে। যদিও তখন পর্যন্ত কোনো উপসর্গ দেখা যায় না।

এই শনাক্তের মানে এই নয় যে রোগীর নিশ্চিতভাবে ক্যান্সার হয়েছে, বরং তার ক্যান্সার হয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার ফলো-আপ পরীক্ষা প্রয়োজন।

মায়ো ক্লিনিক অনকোলজিস্ট ডা. মিনেত্তা লিউ বলেন, ‘আজকাল অনেক ক্যান্সারই অনেক দেরিতে ধরা পড়ে, তাতে করার তেমন কিছু থাকে না। সফল চিকিৎসার জন্য ক্যান্সার শুরুতেই শনাক্ত করার সামর্থ্য অর্জন জরুরি।’

ক্যান্সারের কারণে বিশ্বে বহু মানুষের মৃত্যু হয়। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে প্রচলিত পরীক্ষায় পাঁচ ধরনের ক্যান্সার শনাক্ত করা যায়। আর একবার পরীক্ষায় কেবল এক ধরনের ক্যান্সারই শনাক্ত হয়।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102