রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০২:১৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
সিলেটে ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার দেশে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে জেলা বিএনপির লিফলেট বিতরণ সিলেটের ৭৭ ইউনিয়নে চলছে ভোটগ্রহণ পঞ্চম ধাপে সিলেটের আরও ৭৫ ইউপিতে ভোট ৫ জানুয়ারি  রাত পোহালে ৭৭ ইউপিতে ভোট: ঝুঁকিপূর্ণ সিলেটের ১৩৮ কেন্দ্র দোয়ারায় বসতঘরে অগ্নিকাণ্ড, দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি নূরল আমীন এর ‘ভাটি বাঙলার উচ্ছ্বাস’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন হবিগঞ্জে ১৩০ টাকায় পুলিশের চাকরি পেলেন ৪৪ জন কমলগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের করোনা টিকা প্রদান শুরু খালেদা জিয়ার সুস্থতায় ছাত্রদলের শিরণী বিতরণ ‘দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ স্থগিত করছে বাংলাদেশ’ বিদ্রোহী কবিতার শতবর্ষে আবৃত্তি উৎসবের লোগো উন্মোচন তাহিরপুর সীমান্তে গাঁজা-মদের চালানসহ আটক ৩ শাবিতে টিকার দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম শুরু

নবীগঞ্জের ১৩ইউপির ১১টিতে মুখোমুখি আওয়ামী লীগ-বিদ্রোহী

নতুন সিলেট প্রতিবেদক :
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৪ নভেম্বর, ২০২১
নবীগঞ্জের ১৩ইউপির ১১টিতে মুখোমুখি আওয়ামী লীগ-বিদ্রোহী - Natun Sylhet

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়েনের মধ্যে ১১টিতেই বিদোহী প্রার্থীর কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে আওয়ামী লীগ।

তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এই উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে সরাসরি বিদ্রোহী হয়ে মাঠে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বহিষ্কৃত গজনাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইমদাদুর রহমান মুকুল।

তার সঙ্গে যুক্ত হন নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু দাশ রানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরীর সহোদর ও ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু।

১ নং বড় ভাকৈড় পশ্চিম এবং ৪ নং দীঘলবাঁক ইউনিয়নে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিতরা হাইকমান্ডের প্রতি আস্থাশীল হয়ে বিদ্রোহ থেকে বিরত রয়েছেন। এ ছাড়াও প্রভাবশালী বর্তমান তিন ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে বিরত রয়েছেন।

ওদিকে, বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে শিগগিরই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা নিশ্চিত করেন হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী।

উপজেলা নির্বাচন কমিশন ও দলীয় সূত্র জানায়, উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬৩ জন, ২১টি সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৭৮ জন, ৬৩টি সাধারণ সদস্য পদের জন্য ৪৮৪ জন সহ ৭২৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিন গত মঙ্গলবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত পৃথক ৪ রিটার্নিং অফিসারের নিকট এই মনোনয়নপত্র দাখিল করা হয়। চেয়ারম্যান পদে ১ নং বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নে ৩ জন, ২ নং বড় ভাকৈর (পূর্ব) ইউনিয়নে ৫ জন, ৩ নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নে ৫ জন, ৪ নং দীঘলবাঁক ইউনিয়নে ৭ জন, ৫ নং আউশকান্দি ইউনিয়নে ৪ জন, ৬ নং কুর্শি ইউনিয়নে ৭ জন, ৭ নং করগাঁও ইউনিয়নে ৭ জন, ৮ নং নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে ৭ জন, ৯ নং বাউসা ইউনিয়নে ৩ জন, ১০ নং দেবপাড়া ইউনিয়নে ৫ জন, ১১ নং গজনাইপুর ইউনিয়নে ৫ জন, ১২ নং কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে ৫ জন ও ১৩ নং পানিউন্দা ইউনিয়নে ২ জন প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেন।

মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার দেবশ্রী দাশ পার্লি, উপজেলা কৃষি অফিসার একেএম মাকসুদুল আলম, উপজেলা মৎস্য অফিসার আসাদুল্লাহ ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আজিজুল ইসলাম।

বিএনপিবিহীন নির্বাচনে জাপা ৫ ও ১টি ইউপিতে ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের প্রার্থী রয়েছেন। চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন-বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত সাবেক চেয়ারম্যান সমর চন্দ্র দাশ (নৌকা), বর্তমান চেয়ারম্যান সত্যজিৎ দাশ (স্বতন্ত্র) ও রঙ্গলাল রায় (স্বতন্ত্র)।
২ নং বড় ভাকৈর (পূর্ব) ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত সাবেক চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন ছুবা (নৌকা), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সাবেক চেয়ারম্যান মেহের আলী মহালদার (স্বতন্ত্র), বিদ্রোহী খালেদ মোশারফ ও ফারুক আহমদ (স্বতন্ত্র)। ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত আছাবুর রহমান জীবন (নৌকা), জাপা নেতা শাহীন আহমদ (লাঙ্গল), আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো. ছায়েদ উদ্দিন (বিদ্রোহী), যুবলীগ নেতা নোমান আহমদ (বিদ্রোহী) ও লন্ডন প্রবাসী বিএনপি নেতা মো. মোস্তফা কামাল (স্বতন্ত্র)। দীঘলবাঁক ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ মনোনীত আবু সাঈদ (নৌকা), জাপা নেতা মো. আব্দুল হান্নান চৌধুরী (লাঙ্গল), বিএনপি নেতা সাবেক চেয়ারম্যান ছালিক মিয়া (স্বতন্ত্র), ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আব্দুল বারিক রনি (স্বতন্ত্র), মো. নফল উদ্দিন (স্বতন্ত্র), যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল গাফ্‌ফার (স্বতন্ত্র), জাপা নেতা এলাওর মিয়া (বিদ্রোহী)। আউশকান্দি ইউনিয়নে সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ মনোনীত মো. দিলাওর হোসেন (নৌকা), যুবলীগ নেতা আব্দুল হামিদ নিক্সন (বিদ্রোহী), মোফাজ্জুল হক (স্বতন্ত্র), এজহারুল হক চৌধুরী (স্বতন্ত্র)। কুর্শি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ আলী আহমদ মুছা (নৌকা), সাবেক চেয়ারম্যান সৈয়দ খালেদুর রহমান (স্বতন্ত্র), যুক্তরাজ্য প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মুকিত (বিদ্রোহী), আবু তালিম (বিদ্রোহী), যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপি নেতা শামছুল হুদা চৌধুরী বাচ্চু (স্বতন্ত্র), প্রবাসী শেখ মো. আব্দুল গফুর (স্বতন্ত্র), যুবলীগ নেতা জামাল আহমদ (বিদ্রোহী)।

করগাঁও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত বজলুর রহমান (নৌকা), বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা ছাইম উদ্দিন (স্বতন্ত্র), সাইফুল ইসলাম (জাপা), বিদ্রোহী প্রার্থী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু দাশ রানা (স্বতন্ত্র) ও শেখ মো. ইছাক মিয়া (স্বতন্ত্র)। নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত হাবিবুর রহমান (নৌকা), বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী সহোদর জাবেদুল আলম চৌধুরী সাজু (স্বতন্ত্র), মুফতি মিয়া (জাপা), ছাত্রদল নেতা জাকির আহমদ চৌধুরী (স্বতন্ত্র), আতাউর রহমান চৌধুরী (স্বতন্ত্র), খাজা সফি ওসমান খাকি চৌধুরী (খেলাফত আন্দোলন), হাফেজ কাজী রোহমাউর রশীদ চৌধুরী (স্বতন্ত্র)। বাউসা ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সিদ্দীক (নৌকা), সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মনোনয়নবঞ্চিত যুক্তরাজ্য প্রবাসী জুনেদ হোসেন চৌধুরী (বিদ্রোহী) ও বিএনপি নেতা সাদিকুর রহমান শিশু (স্বতন্ত্র)। দেবপাড়া ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ মনোনীত আব্দুল মুহিত চৌধুরী (নৌকা), যুবলীগ নেতা শামীম আহমদ (বিদ্রোহী), মো. ফখরুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), শাহ রিয়াজ নাদির সুমন (স্বতন্ত্র), কুহিনুর মিয়া (স্বতন্ত্র)।

গজনাইপুর ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বিদ্রোহী প্রার্থী ইমদাদুর রহমান মুকুল (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ মনোনীত সাবের আহমদ চৌধুরী (নৌকা), বিএনপি নেতা শফিউল আলম (স্বতন্ত্র), বিএনপি নেতা আবুল খায়ের কায়েদ (স্বতন্ত্র) ও আওয়ামী লীগ নেতা হাফেজ আইয়ুব আলী (বিদ্রোহী)। কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত ফরহাদ আহমদ (নৌকা), বর্তমান চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সাবেক চেয়ারম্যান এমদাদুল হক চৌধুরী (স্বতন্ত্র), জাপা নেতা হাফিজুর রহমান চৌধুরী (লাঙ্গল) ও বিএনপি নেতা হাজী আজিজ আহমদ (স্বতন্ত্র)। পানিউন্দা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ইজাজুর রহমান (নৌকা) ও যুবলীগ নেতা বিদ্রোহী প্রার্থী মহিবুর রহমান মামুন (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হয়েছেন। ওদিকে, ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান বজলুর রশিদ, বড় ভাকৈড় (পূর্ব) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান ও আলোচিত আউশকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন নির্বাচন প্রক্রিয়া থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে নির্বাচন না করার ঘোষণা দেন প্রভাবশালী ওই তিন চেয়ারম্যান।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102