রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
দোয়ারায় বসতঘরে অগ্নিকাণ্ড, দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি নূরল আমীন এর ‘ভাটি বাঙলার উচ্ছ্বাস’ কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন হবিগঞ্জে ১৩০ টাকায় পুলিশের চাকরি পেলেন ৪৪ জন কমলগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের করোনা টিকা প্রদান শুরু খালেদা জিয়ার সুস্থতায় ছাত্রদলের শিরণী বিতরণ ‘দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ স্থগিত করছে বাংলাদেশ’ বিদ্রোহী কবিতার শতবর্ষে আবৃত্তি উৎসবের লোগো উন্মোচন তাহিরপুর সীমান্তে গাঁজা-মদের চালানসহ আটক ৩ শাবিতে টিকার দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম শুরু ব্যালন ডি’অর মেসির হাতেই? বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশে ফ্লাইট চালু করবে ভারত ছাত্রদল নেতা সামসুদ্দোহার পিতার মৃত্যুতে সিলেট ছাত্রদলের শোক করোনার নতুন ধরন উদ্বেগের, নাম ‘ওমিক্রন’: ডব্লিউএইচও টঙ্গীতে আগুনে পুড়ে ছাই মাজার বস্তির পাঁচশর বেশি বসতঘর ১৩০০ বছর পুরনো মাটির মসজিদের সন্ধান ইরাকে

চেয়ারম্যান হয়েই দুধ দিয়ে গোসল সাবেক বিএনপি নেতার 

নতুন সিলেট প্রতিবেদক :
  • আপডেট : শনিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২১
চেয়ারম্যান হয়েই দুধ দিয়ে গোসল সাবেক বিএনপি নেতার  - Natun Sylhet

ভোটের ময়দানে জনপ্রতিনিধি হয়েছেন ৩ বার। টানা দুইবার ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর এবার চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেই বাজিমাত করেছেন আলমগীর হোসেন আলম।

দ্বিতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হয়ে গেলো বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর)। ওইদিন সিলেটের সীমান্তজনপদ কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ইসলামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

নির্বাচিত হয়েই দুধ দিয়ে গোসল সেরে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন শিক্ষায় প্রাথমিকের গন্ডি পেরোনো নব নির্বাচিত এই চেয়ারম্যান। তার এমন অদ্ভুত কান্ডে এলাকার লোকজনও অবাক।

নির্বাচিত হয়ে নানাভাবে বিজয়োল্লাস করেন প্রার্থীরা। ফুল দিয়ে বরণ, শুভেচ্ছা বিনিময়, সংবর্ধনা, মিষ্টি বিতরণ, নেঁচে-গেয়ে, ঢাকঢোল বাজিয়ে বিজয় উদযাপন করে থাকেন।

কিন্তু চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী সাবেক বিএনপি নেতা আলমগীর হোসেন আলমকে বাড়িতে দুধ দিয়ে গোসল করিয়ে বরণ করে নেন পরিবারের লোকজন। দুধ দিয়ে গোসল করানোর আয়োজনটি ঘরোয়া পরিবেশে সীমাবদ্ধ থাকেনি। দুধ দিয়ে গোসণের ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তার এমন বিচিত্র কান্ডে বিব্রত এলাকার লোকজন। অনেকে ভিডিওটি দেখার পর ভৎসনা করছেন।

যদিও দুধ দিয়ে গোসলের ঘটনাটি অনাকাঙ্খিত এবং সমালোচনায় পড়েছেন বলে স্বীকার করেছেন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন আলম। পূর্ব ইসলামপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আনারস প্রতীকে ৫ হাজার ২৮১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হন তিনি। আলমগীর হোসেন আলম পূর্ব ইসলামপুর ইউনিয়নে খায়েরগাঁও গ্রামের মৃত ছিদ্দিকুর রহমান ছেলে। তিনি কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য।

এ বিষয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলমগীর আলম বলেন, ‘আমার চাচি আম্মার ভাই বাবুল মিয়া ইউনিয়ন পরিষদে গত দুই বারের চেয়ারম্যান ছিলেন। তার পরিষদে দুই মেয়াদে ইউপি সদস্য ছিলাম আমি।’ ‘এ অবস্থায় গত মেয়াদে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে চেয়েছি। কিন্তু বাবুল মিয়া বোন আমার চাচির অনুরোধে প্রার্থী হইনি। এবার তিনি না দাঁড়িয়ে আমাকে সুযোগ দেওয়ার কথা ছিল।’ কিন্তু তিনি আমাকে ছাড় না দিয়ে বেঈমানির উচিত শিক্ষা পেয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে গিয়ে ৫ নম্বর হয়েছেন। চাচির ইচ্ছা ছিল আমি পাস করলে দুধ দিয়ে গোসল করাবেন। বাড়ি ফেরার পর তিনি কথা রাখতে গিয়ে সেটি করেছেন। যদিও এটা আমার পক্ষে করা উচিত হয়নি। কেননা, আল্লাহ দুধ আল্লাহর নেয়ামত, মানুষের পান করার জন্য। একদিন পর যখন দেখেছেন মানুষ বিরুপ মন্তব্য করছে, তখন সেটি সরিয়ে নিয়েছেন। এরজন্য তিনি এলাকার মানুষের কাছে লজ্জিত এবং ক্ষমা প্রার্থী।

শিক্ষার দিক থেকে ৫ম শ্রেনী পাস করে আর পড়ালেখা হয়নি জানিয়ে আলমগীর বলেন,এবারের নির্বাচনে চাচির আপন ভাই মামা তার সঙ্গে বেঈমানী করেছেন। প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না বলেও প্রার্থী হয়েছেন। তাই ভোটাররা তাকে উচিত শিক্ষা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আগে আমি বিএনপি করতাম। দলীয় অনুষ্ঠানে যেতাম। এখন কোনো দল করি না। তাই স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলাম।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ৫টি ইউপির মধ্যে ইসলামপূর পূর্ব ইউনিয়নে সাবেক বিএনপি নেতা স্বতন্ত্র আলমগীর হোসেন আলম আনারস প্রতীকে ৫ হাজার ২৮১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি অটোরিকশা প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হক ৩হাজার ৭ ভোট পেয়েছেন। আর নৌকার প্রার্থী ২হাজার ৬১ ভোট পেয়ে ভোটের হিসাবে ৫ নম্বরে রয়েছেন।

এছাড়া মোটরসাইকেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইলিয়াসুর রহমান ৩হাজার ৮৭৯ ভোট, ঘোড়া প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান বাবুল মিয়া ২হাজার ৭৩৪ ভোট, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী ইমতিয়াজ উদ্দিন হাতপাখা প্রতীকে ১৮১ ভোট পেয়েছেন। ইউনিয়নে মোট ২৩ হাজার ২৫৬ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত ভোট ১৭ হাজার ৫৩৩টি। জামানত বাঁচাতে প্রয়োজন ২হাজার ১৯১ ভোট। সে হিসেবে ৩ জন প্রার্থী জামানত হারিয়েছেন।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102