বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:১৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ ::
৬ মাস রাতে বন্ধ থাকবে ঢাকার রানওয়ে, জরুরি অবতরণ সিলেটে খালেদার অসুস্থতাকে পুঁজি করে বিএনপি আন্দোলন করছে-প্রধানমন্ত্রী বিশ্বনাথে পুকুরে ডুবে প্রতিবন্ধী যুবতীর মৃত্যু মৌলভীবাজারে ইটভাটা শ্রমিককে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা `কর্মগুনে সবার প্রিয় হয়ে উঠেছেন অ্যাডভোকেট জালাল’ কর্মী প্রেরণে বাংলাদেশ-বসনিয়া সমঝোতা আলোচনায় সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত: প্রতিরক্ষা প্রধানসহ নিহত ১৩ তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় রুপিসহ যুবক আটক জাতির পিতার আদর্শে তরুণ প্রজন্মকে প্রস্তুত করতে যুবলীগকে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৫৭ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন : ডব্লিউএইচও বিয়ের মঞ্চে কনের সিঁথিতে প্রেমিকের সিঁদুর! সিলেটে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ভারতে প্রতিরক্ষা প্রধানবাহী হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, নিহত ৪ তাহিরপুরে শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা

`স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেলে মরে যাবো’

নতুন সিলেট প্রতিবেদক:
  • আপডেট : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১
`স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেলে মরে যাবো’ - Natun Sylhet

 ‘স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে আমরণ অনশন/স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেলে মরে যাবো/রুহিনের ঘরে যাবো নইলে বিষ খাবো’। সাদা কাগজে দাবি সংযুক্ত এমন সব লেখা পেকার্ড হাতে নিয়ে অনশন করছিলেন রেহেনা আক্তার নামের এক নারী।

শনিবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে সিলেট নগরের কালিবাড়ি বন্ধন-১৪/ডি বাসার সামনে অনশন করতে দেখা যায় তাকে। বাসার বাসিন্দা মো. আবু হানিফের ছেলে মিছবাহুজ্জামান রুহিনকে স্বামী দাবি করেছিলেন তিনি।

আর স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে ছুটে এসেছেন সুদূর নারায়নগঞ্জ থেকে। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) সিলেটে পৌছে শনিবার (২০ নভেম্বর প্রেমিকের বাসার সামনে দাঁড়িয়ে তিনি অনশন করেন।

চাঁদপুর জেলার হাজিগঞ্জ থানার শিদনা গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের মেয়ে রেহেনা। তার দাবি, ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয়ে ৮ মাস আগে রুহিন তাকে এফিডেভিড করে বিয়ে করেন। বিয়ে হয়েছে নারায়নগঞ্জে। সালমান নামের একজন সাক্ষি ছিলেন। বিষয়টি তার পরিবারের সদস্যদেরও জানা।

`স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেলে মরে যাবো’ - Natun Sylhet`স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেলে মরে যাবো’ - Natun Sylhet

অনশনরত রেহেনা আক্তার বলেন, ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয়। অত;পর দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিলো তাদের। পরে তারা দুজন বিয়ে করেন। বিয়ের পর  ৮ মাস একসঙ্গে থেকে সংসার করেছেন। কিন্তু স্ত্রী হিসেবে তাকে তুলে আনছেন না রুহিন। যে কারণে আদালতের স্মরণাপন্ন হই। রেহেনা এসময় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে দায়ের করা মামলার কপি দেখান। (আদালতে সিআর মামলা নং- ৩৩৫/২০২১)। মামলাটি বর্তমানে পিবিআই তদন্ত করছে।

রেহেনা বলেন, রুহিনের মা (আমার শ্বাশুড়ি) মামলা না করতে কান্নাকাটি করে বারণ করেছিলেন। কিন্তু ঘরে তুলে নিচ্ছেন না। কোনো উপায় না দেখে মামলায় যেতে হলো। তবে রুহিন ঘরে তুলে নিলে মামলা তুলে নেবেন তিনি। রেহেনা বলেন, কাবিননামার মূল কপি রুহিনের কাছে। আমার কাবিনামা থাকলেও অস্পষ্ট কপি রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে জালালাবাদ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. নাজমুল হুদা খান  বলেন, সপ্তাহদিন আগে ওই মহিলা রুহিনের বাসায় এসেছিলেন। সেদিন নাকি তার মা-বোনেরা তাকে হুমকি দিয়ে বের করে দিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরী করে গেছেন। আজ আবার তিনি এসেছেন এবং বাসার বাসিন্দা রুহিনকে স্বামী হিসেবে দাবি করছেন। তবে যেহেতু মামলাটি পিবিআই তদন্ত করছে, সত্য-মিথ্যা তারা দেখবে। আইনগত ভাবে যতটুকু সহায়তা করার সত্যতা পেলে আমরা করে যাবো।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102