মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ ::
সিলেটের সর্বকনিষ্ঠ প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন আজিম শাবিতে শিক্ষার্থীদের উপর নগ্ন হামলার প্রতিবাদে জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল সেই দুই রির্টানিং কর্মকর্তাকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ উত্তাল শাবিপ্রবিতে চলছে ভর্তি কার্যক্রম ‘যেই ভিসি ‘কসাই’, সেই ভিসির পতন চাই! শাবির হলে হলে শিক্ষার্থীদের তালা, হলগুলো শিক্ষার্থীদের নিয়ন্ত্রণে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল শাবি ইভিএমে ভোট কারচুপির সুযোগ নেই: মন্ত্রী তাজুল ইসলাম শাবিতে শিক্ষার্থীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, তদন্ত কমিটি গঠন তীব্র ঝড়ে যুক্তরাষ্ট্রের ২৭০০ ফ্লাইট বাতিল কমলগঞ্জে অগ্নিকাণ্ড, ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি এবার ভিসির পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল শাবি তাহিরপুরে কোয়ারিতে মাটি চাপায় প্রাণ গেল শ্রমিকের শাবিপ্রবির সিরাজুন্নেসা হলের নতুন প্রভোস্ট ড. নাজিয়া কানাইঘাটে সাংবাদিকের হাত-পা ‘কাটলো’ প্রতিপক্ষ

সিলেটে ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার

নতুন সিলেট প্রতিবেদক :
  • আপডেট : রবিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২১
সিলেটে ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার - Natun Sylhet

অবৈধ পথে সিলেটে এসে ভিক্ষাবৃত্তি করা শুরু করেছিলেন ভারতীয় নাগরিক শ্রী সিতারাম লাল চন্দ্র (৫০)। অবশেষে ধরা পড়ার পর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি ভারতের ছত্রিশ প্রদেশের বিলাসপুর জেলার মরোয়ারী থানাধীন মাটিয়াঢাল এলাকার শ্রী শ্যামলাল চন্দ্র দাসের ছেলে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাতাঁর কেটে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছিলেন এবং বেশ কিছুদিন আগে তিনি বাংলাদেশে এসে ভিক্ষাবৃত্তি করে চলছিলেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পেরেছে পুলিশ।

রোববার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি কামরুল হাসান তালুকদার।

বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের দায়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় এএসআই আমিনুর রহমান তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠান হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এরআগে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাতে দক্ষিণ সুরমা থানার ভার্থখলা এলাকা থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি কামরুল হাসান তালুকদার বলেন, গ্রেফতার সিতারাম লাল চন্দ্র ভারতের বিভিন্ন অংশে ঘুরে বেড়ান ৫৩ দিন। এরপর জাফলং সীমান্ত দিয়ে প্রায় একমাস পূর্বে নদী সাঁতার কেটে অবৈধভাবে সিলেটে এসে পৌঁছান। সিলেটে আসার পর রেলওয়েস্টেশনসহ বিভিন্নস্থানে ভিক্ষাবৃত্তিতে নেমে পড়েন। বাংলা ও হিন্দি ভাষায় কথা বলে সিতারাম। তার কাছে কোনও পাসপোর্ট কিংবা কোনও ধরনের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তার বিরুদ্ধে কন্ট্রোল অব অ্যান্টি আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

© নতুন সিলেট মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102